হাতিয়ায় সরকারি জায়গা থেকে মাটি নিয়ে যাওয়ার অপরাধে একজনকে ১লাখ টাকা জরিমানা ১ বছরের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হাতিয়ায় সরকারি খাস জায়গা থেকে মাটি কেটে দখলে যাওয়ার অপরাধে আতাউর রহমান পলিন (৪০) নামে একজনকে এক বছরের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার জাহাজমারা ইউনিয়নের বিরবিরি গ্রামে এই জরিমানার ঘটনা ঘটে।
অভিযুক্ত পলিন হাতিয়ার জাহাজমারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বিরবিরি গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।
জানাযায়, মুজিব বর্ষের গৃহহীনদের ঘর নির্মানের জন্য জাহাজমারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে একটি সরকারী খাস জমি নির্ধারন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন সম্প্রতি জায়গাটি নির্ধারন করে  উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে  কাগজ পত্র পাটিয়েছে। দু- একদিনের মধ্যে ঘর নির্মানের সিদ্বান্ত হয়েছে। এই সংবাদ পেয়ে পলিন রাতের আধারে উক্ত জায়গা থেকে মাটি কেটে দখলে নিয়ে  যাচ্ছিল।
মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ার সংবাদ পেয়ে সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভুমি মোহাম্মদ  মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী ও জাহাজমারা পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা গিয়ে পলিনকে মাটি কাটা ভেকু যন্ত্রসহ ঘটনাস্থলে আটক করে। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  মোঃ মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী   তাৎক্ষনিক ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তাকে এক বছরের জেল দেয়। এছাড়া আরো এক লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো তিন মাসের জেল দেয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন জানান, সরকারী খাস জায়গাটা মুজিব বর্ষের গৃহহীনদের ঘর নির্মানের জন্য নির্ধারিত ছিল। এখান থেকে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়া অনেক বড় অপরাধ বলে আমি মনে করি।

 

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *