হাতিয়ায় এক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

বিএন প্রতিবেদকঃ  নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার চরইশ্বর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার রবীন্দ্র চন্দ্র দাস (৪৮) কে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা। পুর্ব শক্রতার জের ধরে বর্তমান চেয়াম্যান আব্দুল হালিম আজাদের লোকেরা এই হত্যা কান্ড ঘটিয়েছে বলে দাবী করেছেন নিহতের স্বজনেরা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাত ২টার সময় খাসের হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন প্রধান সড়কে। নিহত রবীন্দ্র দাস চরইশ্বর ইউনিয়নের ৩নং ওযার্ডের পন্ডিত গ্রামের সতীশ চন্দ্র দাসের ছেলে ও উপজেলা আওয়ামীলীগের একজন সদস্য। তিনি বর্তমান ইউপি সদস্য ও ২১জুনের নির্বাচনে একজন ইউপি সদস্য পদপ্রাথর্ী।
হাতিয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আল আমিন  জানান, রাত ২টার দিকে রবীন্দ্র মেম্বার সহ একই মটর সাইকেলে করে সে বাংলা বাজার থেকে উপজেলা সদর ওছখালীর দিকে আসছিল। খাসের হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আসলে বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম আজাদের ছেলে অমি,ও ভাতিজা সোহেল,নাজিম ডাকাত,রহিম ডাকাত সহ ৬০/৭০জন লোক তাদের গতিরোধ করে। এসময় সে (আলআমিন) দৌড়ে পালিয়ে যেতে পারলে ও সন্ত্রাসীরা গুলি ছুড়লে গুলিবিদ্ধ হয়ে রবীন্দ্র মাটিতে পড়ে যায় এবং পরে সন্ত্রাসীরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে যায়। রাতে টহল পুলিশ রাস্তার পাশে রবীন্দ্র মেম্বারকে পড়ে থাকতে দেখে হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এদিকে চরইশ্বর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রাশেদ উদ্দিন জানান,রবীন্দ্র মেম্বারের নেতৃত্বে ১২জন ইউপি সদস্য বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম আজাদের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রদান করলে চেয়ারম্যানের সাথে তার বিরোধ প্রকাশ্যে রুপ-নেয়।
নিজের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম আজাদ বলেন,আমি বর্তমানে ঢাকা রয়েছি। এ হত্যাকান্ডের সাথে আমি,আমার পরিবারের ও দলের কোন লোক জড়িত নয়।
এ ব্যাপারে হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)আবুল খায়ের জানান,মেম্বার রবীন্দ্র চন্দ্র দাস সহ শ্রমিকলীগের সভাপতি আল আমিন রাতে ওছখালী আসার পথে এ ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *